ট্রাম্পের আয়-ব্যয়ের তথ্য প্রকাশে সুপ্রিম কোর্টের রুলিং

আন্তর্জাতিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
০৪:০৫:০৫পিএম, ২৩ নভেম্বর, ২০২২

টানা তিন বছরের আইনি লড়াইয়ে ধরাশায়ী হলেন সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত ৬ বছর তিনি আয়-ব্যয়ের আলোকে কত ডলার ট্যাক্স পরিশোধ করেছেন-সেই তথ্য এখন কংগ্রেসকে জানাতে পারবে আইআরএস (ইন্টারনাল রেভিনিউ সার্ভিস)। সুপ্রিম কোর্ট ২২ নভেম্বর মঙ্গলবার এই রায় দিয়েছে। 

উল্লেখ্য, কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের ‘ওয়েজ এ্যান্ড মীন্স কমিটি’র পক্ষ থেকে ট্রাম্পের আয়-ব্যয়ের প্রকৃত তথ্য জানতে চেয়েছিল ২০১৯ সালে। কিন্তু প্রেসিডেন্ট হিসেবে বিশেষ ক্ষমতাবলে ট্রাম্প তা দিতে অস্বীকার করেছিলেন। এরপর ওয়েজ এ্যান্ড মীন্স কমিটি সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল। ট্রাম্প আত্মপক্ষ সমর্থন করার সময় যুক্তি উপস্থাপন করেন যে, তার আয়-ব্যয়ের ওপর ট্যাক্স প্রদানের তথ্য জনসমক্ষে প্রকাশের মাধ্যমে মহলবিশেষ রাজনৈতিক ফায়দা হাসিল করতে চায়। সুপ্রিম কোর্টের সর্বশেষ রুলিংয়ের মাধ্যমে ট্রাম্পের ট্যাক্স রিটার্নের তথ্য ডেমক্র্যাট-শাসিত প্রতিনিধি পরিষদ দ্রুত পেয়ে যাবে। 

নতুন বছরের প্রথম সপ্তাহে প্রতিনিধি পরিষদের নেতৃত্ব রিপাবলিকানরা পাবার আগেই ট্রাম্পের ট্যাক্স ফাঁকির বিস্তারিত তথ্য ডেমক্র্যাটরা পেলে তা হবে সামনের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্পকে বিব্রত করার ক্ষেত্রে বড় ধরনের হাতিয়ার বলে অনেকে মনে করছেন। সুপ্রিম কোর্টের আপিলেট ডিভিশনের এই রায়ের পরিপ্রেক্ষিতে ট্রেজারি ডিপার্টমেন্ট খুব দ্রুত ট্রাম্পের বিস্তারিত তথ্য কংগ্রেসকে অবহিত করলেও তা ফেডারেল প্রশাসন থেকে জনসমক্ষে প্রকাশ করবে কিনা-তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। 

যদিও প্রেসিডেন্ট জর্জ বুশ, বারাক ওবামাসহ সাবেক অনেক প্রেসিডেন্টই বার্ষিক আয়-ব্যয়ের তথ্য ট্যাক্স প্রদানের দিনই জনসমক্ষে প্রকাশ করেছেন। বর্তমান প্রেসিডেন্ট বাইডেনও প্রকাশে কার্পণ্য করেননি। কেবলমাত্র ট্রাম্প তা প্রকাশে অস্বীকার করেছিলেন। এরফলে সর্বত্র গুঞ্জন উঠে যে, ট্রাম্প যথাযথভাবে ট্যাক্স প্রদান করেন না অথবা প্রকৃত আয়ের তথ্য গোপন করে ট্যাক্স ফাঁকি দিচ্ছেন।