মার্কিন ড্রোনের সঙ্গে রুশ যুদ্ধবিমানের সংঘর্ষের ভিডিও প্রকাশ আমেরিকার

আন্তর্জাতিক
নিজস্ব প্রতিবেদক
০১:১২:২১পিএম, ১৭ মার্চ, ২০২৩

কৃষ্ণসাগরের আকাশে মার্কিন গোয়েন্দা ড্রোন ও রাশিয়ার যুদ্ধবিমানের সংঘর্ষের ভিডিও প্রকাশ করল আমেরিকা। শুরু থেকেই সে দেশের প্রশাসন দাবি করে আসছে, রাশিয়ার এসইউ-২৭ যুদ্ধবিমানটি দায়িত্বজ্ঞানহীনভাবে তাদের এমকিউ-৯ ড্রোনটিকে ধ্বংস করেছে। আমেরিকার বিমান বাহিনীর ইউরোপীয় ও পূর্ব আফ্রিকার কমান্ডার জেমস হেকার বলেছেন, “সংঘর্ষের আগে দীর্ঘক্ষণ ড্রোনটির সামনে বেপরোয়াভাবে উড়েছে বিমানটি। ড্রোনের উপরে জ্বালানিও ফেলেছে সেটি।”

অন্যদিকে, রাশিয়ার পাল্টা দাবি, ড্রোনটি তাদের সীমানার কাছে চলে আসায় যুদ্ধবিমানটি সতর্ক হয়। তবে বিমানে থাকা কোনও অস্ত্রই ব্যবহার করা হয়নি। জ্বালানি ফেলার অভিযোগও সঠিক নয় বলে দাবি রুশ কর্তৃপক্ষের।

এদিকে, এই ঘটনা নিয়ে ৪০ সেকেন্ডের একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। তাতে দেখা যাচ্ছে ড্রোনের খুব কাছ দিয়ে উড়ছে বিমানটি। একবার জ্বালানি ফেলতেও দেখা গেছে সেটিকে। আমেরিকার দাবি, বিমানের সঙ্গে সংঘর্ষে ড্রোনটির একটি প্রপেলার ক্ষতিগ্রস্ত হয়, যার ফলে সেটি ভেঙে পড়ে সমুদ্রে। 

রাশিয়া সেই অভিযোগ নস্যাৎ করে জানিয়েছে, অতিরিক্ত গতির জন্য নিজেকে সামলাতে পারেনি ড্রোনটি। সেটিই ভেঙে পড়ার কারণ। আমেরিকায় রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আনাতোলি আন্টোনভ বলেন, “বলা চলে, ড্রোনটি বিশেষ উদ্দেশ্য নিয়েই রাশিয়ার ক্রিমিয়া সীমান্তের কাছে উড়ছিল। এমকিউ-৯ ধরনের ড্রোন মূলত গুপ্তচরবৃত্তির জন্যই ব্যবহৃত হয়।”

রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু জানান, রুশ সীমান্তের কাছে আমেরিকার নজরদারি ড্রোনের আনাগোনা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত।