অস্কার মঞ্চে পুতিনবিরোধী মন্তব্য পরিচালকের

বিনোদন
নিজস্ব প্রতিবেদক
১২:১২:৩৫পিএম, ১৪ মার্চ, ২০২৩

যত সাবধানতাই অবলম্বন করা হোক, ‘প্রতিবাদ’ ঠিকই তা ভাষা খুঁজে নেয়। খুঁজে নেয় মাধ্যমও। যেমনটি ঘটল ৯৫তম অস্কারের মঞ্চেও। অ্যাকাডেমির মঞ্চ সাক্ষী থাকল এক অন্য রকম মুহূর্তের। কানাডার পরিচালক ড্যানিয়েল রোহের। তার পরিচালিত ‘নাভালনি’ পেয়েছে সেরা তথ্যচিত্রের অ্যাওয়ার্ড। নিজের টিমের সঙ্গে পুরস্কার নিতে উঠে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন তিনি।

আসলে ‘নাভালনি’র কেন্দ্রে রয়েছেন রাশিয়ার সমাজকর্মী অ্যালেক্সেই নাভালনি। মূলত পুতিনের বিরোধী শিবিরের মুখ হিসেবে তিনি জনপ্রিয়। ২০২০ সালে তার উপর বিষ প্রয়োগ এবং সেখান থেকে তার বেঁচে ফেরার ঘটনাই এই তথ্যচিত্রের সারকথা। মঞ্চে পুরস্কার নিতে উঠে ড্যানিয়েল রোহের সরাসরি বলেন, “এই পুরস্কার আমি সারাবিশ্বের রাজবন্দিদের উৎসর্গ করছি।”

উল্লেখ্য, সরকারের রোষানলে পড়ে এই মুহূর্তে রাশিয়ায় কারারুদ্ধ রয়েছেন নাভালনি। তাকে ৯ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে পুতিনের সরকার। স্বাভাবিকভাবেই তিনি অস্কার অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকতে পারেননি। নাভালনির উক্তি ধার করেই এই পরিস্থিতিকে ড্যানিয়েল, “ইউক্রেনের প্রতি ভ্লাদিমির পুতিনের অনৈতিক যুদ্ধ ঘোষণা’’র ফল হিসেবে আখ্যা দেন। এরই সঙ্গে তিনি নাভালনির উক্তি মনে করিয়ে দেন, “একনায়ক মাথা চাড়া দিলে তার বিরোধিতা করতে ভয় পাওয়ার কোনও কারণ নেই।”

ড্যানিয়েল তার বক্তব্য শেষ করতেই ডলবি থিয়েটার করতালিতে ফেটে পড়ে। মঞ্চে ছিলেন নাভালনির স্ত্রী ইউলিয়া। ড্যানিয়েল তাকেও বলার সুযোগ করে দেন। অস্কার মঞ্চ থেকেই ইউলিয়া তার স্বামী এবং দেশের উদ্দেশে বার্তা দেন। বলেন, “সত্যি কথা বলা এবং গণতন্ত্রকে রক্ষার জন্য আমার স্বামী জেলবন্দি!” এরই সঙ্গে তিনি বলে ওঠেন, “অ্যালেক্সেই, আমি সেই দিনের স্বপ্ন দেখছি যে দিন তুমি ছাড়া পাবে এবং তার সঙ্গেই আমাদের দেশও মুক্ত হবে। মন শক্ত রেখ প্রিয়।”