প্রধানমন্ত্রীর মহানুভবতায় চাকরি পেলেন শিবিরের হামলায় পা হারানো ছাত্রলীগ নেতা

শিক্ষা সংবাদ
নিজস্ব প্রতিবেদক
০৪:৪০:৫৮পিএম, ১৪ জানুয়ারী, ২০২৩

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মহানুভবতায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের চাকরি পেয়েছেন ছাত্রশিবিরের হামলায় পা হারানো ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল মাসুদ। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশে সেকশন অফিসারের সমমানে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রে স্টোর অফিসার পদে তাকে নিয়োগ প্রদান করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ইতোমধ্যে মাসুদ চাকরিতে যোগদান করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন তিনি।

জানা গেছে, গত ৬ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের পরিচালক-৭ মীর তাফেয়া সিদ্দিকা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কাছে পাঠানো চিঠিতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সেকশন অফিসার পদে মাসুদকে নিয়োগ দিতে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করেন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে গত ২০ ডিসেম্বর মাসুদকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারে স্টোর অফিসার পদে নিয়োগ প্রদান করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। নিয়োগপত্র পেয়ে ২২ ডিসেম্বর চাকরিতে যোগদান করেন তিনি।

ছাত্রলীগ নেতা মাসুদ বলেন, ‘শিবিরের নৃশংস হামলায় আহত হওয়ার পর থেকে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন আমার খোঁজখবর রেখেছেন ও উন্নত চিকিৎসার জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছেন। আমার চাকরির জন্য বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে সুপারিশও করেছেন। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা থাকায় চাকরি পেতে বিলম্বিত হচ্ছিল। চাকরির জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আবেদন করি। প্রধানমন্ত্রীর মহানুভবতায় বিশ্ববিদ্যালয়ে চাকরি পেয়েছি’।

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র বলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে শিবিরের সন্ত্রাসীরা ছাত্রলীগের অনেক নেতাকর্মীর ওপর হামলা চালিয়ে হাত ও পায়ের রগ কেটে দিয়েছে। মাসুদের পা কেটে গোড়ালি থেকে বিচ্ছিন্ন করে দিয়েছিল। নির্যাতিত এই ছাত্রলীগ নেতাকে চাকরি দিয়েছেন  প্রধানমন্ত্রী। তিনি তৃণমূলের আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের খোঁজখবর রাখেন। আব্দুল্লাহ আল মাসুদ চাকরি পাওয়ায় আমরা খুশি।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ২৯ এপ্রিল সকালে ক্লাসের উদ্দেশে যাওয়ার সময় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের জিয়া হলের সামনে নারকীয় হামলার শিকার হন ছাত্রলীগ নেতা মাসুদ। শিবিরের বর্বোরোচিত ও নৃশংস হামলায় ছাত্রলীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল মাসুদের ডান পায়ের নিচের অংশ গোড়ালি থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। আর বাম পাও মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত। তিনি তৎকালীণ রাবি শাখা ছাত্রলীগের সদস্য ছিলেন।